ইমু একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম

ইমু একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম: আমাদের অনেক সময় ইমু একাউন্ট ডিলিট করার প্রয়োজন পড়ে কিন্তু কিভাবে অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে হয় সে সম্পর্কে না জানার কারণে আমরা ইমু একাউন্ট ডিলেট করতে পারিনা এর ফলে আমাদের  অনেক সময় অনেক সমস্যায় পড়তে হয়। আজকের লেখাটির মাধ্যমে আপনাদের জানানো হয়েছে ইমু একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম সম্পর্কে। যদি আপনারা নিজে থেকেই  ইমু অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে চান তাহলে লেখা টি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

 ইমু একাউন্ট কি

ইমু হচ্ছে একটি অ্যাপ্লিকেশন যেটা ব্যবহার করে আমরা আমাদের কন্টাক লিস্টে থাকা ইমু ব্যবহারকারী লোকজনের সাথে ইন্টারনেট ব্যবহারের মাধ্যমে অডিও ভিডিও কলে কথা বলতে পারি এবং মেসেজিং এর মাধ্যমে তথ্য আদান-প্রদান করতে পারি। 2005 সাল থেকে এই ইমু নামক অ্যাপ্লিকেশনটি চালু হয়।  বর্তমানে এই অ্যাপ্লিকেশনটি খুব জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে ।  অধিক জনপ্রিয়তা লাভের অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে ইমো অ্যাপ টিতে সামান্য ইন্টারনেট খরচে আমরা অনেক সময় কথা বলতে পারি বা মেসেজিং করতে পারি। ইমু অ্যাপ্লিকেশনটি সর্বস্তরের মানুষ পছন্দ করে কারণ এই অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে  কথা বলা ছাড়াও আরো অনেক কাজ করা যায় যেমন মেসেজ এর মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদান করা,  কোন ভিডিও অডিও আদান প্রদান করা,  কোন ডকুমেন্ট ফাইল পিডিএফ ফাইল আদান প্রদান করা যায়  এবং ইমু গ্রুপের মাধ্যমে অনেক জন ইউজার একসাথে যুক্ত হতে পারে। যার জন্য ইমু অ্যাপ্লিকেশনটি বর্তমানে জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করছে। ইন্টারনেটে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী জানা যায় বর্তমানে 100 মিলিয়ন এর বেশি অ্যাক্টিভ ইমু ব্যবহারকারী আছে। সবথেকে সুবিধাজনক বিষয় হচ্ছে ইমু অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করার জন্য আমাদের কোন ঝামেলা পোহাতে হয় না আমরা সহজেই গুগল প্লে স্টোর থেকে ইমু অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করতে পারি। এবং যারা আইফোন ব্যবহারকারী আছেন তারা অ্যাপেল অ্যাপ স্টোর থেকে ইমু অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

ইমু একাউন্ট ডিলেট করলে যে সকল অসুবিধা হতে পারে

অনেক সময় আমাদের ইমু একাউন্ট ডিলিট করার প্রয়োজন  হয়। ইমু একাউন্ট ডিলেট এর ফলে আমাদের যে সকল অসুবিধা হতে পারে সেগুলো হলো। 

  • আমাদের অ্যাকাউন্টে থাকা সকল তথ্য মুছে যাবে আমাদের যত চ্যাট লিস্ট এবং পিকচার  ইত্যাদি সবকিছু মুছে যাবে তবে পিকচারগুলো ব্যাকআপ হিসেবে ডাউনলোড করে রাখতে পারেন।
  •  আপনি যদি কোন ইমু গ্রুপের এডমিন হয়ে থাকেন তাহলে আপনার ওই গ্রুপটির  নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলবেন।  আপনি যদি আপনার ইমু গ্রুপ টি অ্যাক্টিভ রাখতে চান তাহলে আপনার একাউন্ট টি ডিলিট করার আগে অন্য একজনকে এডমিন দিয়ে রাখবেন।
  • আপনি যদি ইমুতে কোনো ব্যবহারকারীকে ব্লক করে থাকেন এবং আপনার অ্যাকাউন্ট টি ডিলিট করে দেন পরবর্তীতে যদি ওই নাম্বার দিয়ে আবার একটি ইমো একাউন্ট খুলেন তাহলে আপনি যে ব্যবহারকারীকে ব্লক করে দিয়েছিলেন সে  আর ব্লক লিস্টে থাকবে না।  আপনাকে আবার নতুন করে ব্লক করতে হবে।
  • এবং আপনার ইমু একাউন্ট টি যদি অন্য কোন ডিভাইসে লগ ইন করা থাকে তাহলে যে কোন এক ডিভাইস থেকে একাউন্ট টি ডিলিট করার ফলে অন্য ডিভাইস থেকে ডিলিট হয়ে যাবে অটোমেটিক ।

চলুন এবার জেনে নেয়া যাক ইমু একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম সম্পর্কে।

ইমু একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম

আমরা যারা ইমু ব্যবহার করি আমাদের অনেক সময় অনেক কারণে ইমু একাউন্ট ডিলিট করার প্রয়োজন হয় কিন্তু কিভাবে  ইমু একাউন্ট ডিলিট করতে হয় সেটা না জানার কারণে আমরা নিজে থেকে আমাদের ইমু একাউন্টটিকে ডিলিট করতে পারিনা অন্য কারো সহযোগিতা নিতে হয় আজকের লেখা টি মনোযোগ দিয়ে পড়লে আপনি নিজে থেকেই ইমু একাউন্ট টি ডিলিট করতে পারবেন। ইমু একাউন্ট ডিলিট করার জন্য প্রথমে আপনাকে

  • ইমু অ্যাপ্লিকেশনে আপনি যে একাউন্টি ডিলিট করতে চাচ্ছেন সেটি লগইন করে নিতে হবে আর যদি পুনরায় লগইন করা থাকে তাহলে  ভালো।
  • অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করার পরে  ইমুর Settings অপশনে প্রবেশ করুন।
  • সেটিং এ প্রবেশ করার পরে আপনি বেশ কয়েকটি অপশন দেখতে পাবেন  সেখানে Account & Security নামক একটি অপশন দেখতে পাবেন সেটি তে প্রবেশ করুন।
  • এরপরে Delete imo Account নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন সেই অপশনটিতে ক্লিক করুন।
  • ডিলিট ইমো একাউন্ট নামক অপশনটিতে ক্লিক করার পরে আপনাকে কনফার্ম করতে হবে যে আপনি কি আপনার  একাউন্ট এর সকল তথ্য ডিলিট করতে চাচ্ছেন কিনা  এ বিষয়ে আপনাকে সর্তকতা দেখানো হবে  সেখান থেকে আপনাকে Apply To Delete নামক অপশনটি সিলেক্ট করে ওকে করতে হবে বা অপশনটির উপরে ক্লিক করতে হবে।
  • এবং এরপরে আপনাকে নতুন একটা  পেজে নিয়ে আসবে সেখান থেকে আপনি কেন আপনার ইমু অ্যাকাউন্ট থেকে ডিলিট করতে চাচ্ছেন সেটা সিলেক্ট করতে হবে ।
  • এর পরে আপনি যেই নাম্বারটি দিয়ে ইমু একাউন্ট ক্রিয়েট করছিলেন সেই নাম্বারে আপনার একটা OTP  কোড যাবে মেসেজ এর মাধ্যমে –  সেই কোডটি এনে সাবমিট করলেই আপনার ইমু একাউন্ট টি চিরদিনের জন্য ডিলিট হয়ে যাবে। অ্যাকাউন্ট টি ডিলিট করার পরে আপনি ওই অ্যাকাউন্টের কোন তথ্য খুঁজে পাবেন না তাই অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো আপনাকে আগে সংগ্রহ করে রাখতে হবে।

ইমু  একাউন্ট ডিলেট সম্পর্কে কিছু কথা

আশাকরি ইমু একাউন্ট ডিলেট সম্পর্কে বিস্তারিত বুঝতে পেরেছেন।  তবে অ্যাপ্লিকেশন  আপডেট এর ফলে অ্যাকাউন্ট ডিলিট পদ্ধতিতে কিছু সামান্য পরিবর্তন হতে পারে এগুলো আপনি দেখলেই বুঝতে পারবেন।  একাউন্ট একবার ডিলিট হয়ে যাওয়ার পরে  ওই অ্যাকাউন্টের কোনো তথ্য আপনি আর খুঁজে পাবেন না  তাই অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো কে ডিলিট এর পূর্বে সংগ্রহ করে রাখতে হবে। আশা করি সকলে ইমু একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম  সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন যদি বুঝতে কোন সমস্যা হয়ে থাকে তাহলে কমেন্টে জানান।

আরো পড়ুন: অনলাইন জব মোবাইল

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *