পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

আপনার যদি পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম  বা হাতের লেখা জন্ম নিবন্ধন কিভাবে অনলাইন করবেন সে সম্পর্কে না জানেন তাহলে আজকের লেখা টি আপনার জন্য।  লেখা টি মনোযোগ দিয়ে পড়লে আপনারা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পারবেন। 

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন

যারা এখনো পুরাতন জন্ম নিবন্ধন কার্ড গুলো অনলাইন করেননি তারা অতি দ্রুত জন্ম নিবন্ধন কার্ড টি অনলাইন করে নিবেন কেননা বর্তমানে যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করা না থাকে তাহলে আপনি ওই জন্ম নিবন্ধন দিয়ে কোন কাজ করতে পারবেন না কারণ আপনার কোন তথ্য ইন্টারনেটে খুঁজে পাওয়া যাবে না।

 তাই যারা এখনও জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করেননি দ্রুত অনলাইন করে নিবেন।  কিভাবে জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করবেন সে সম্পর্কে আজকের লেখাটি, জন্ম নিবন্ধন কার্ড এর মাধ্যমে একজন ব্যক্তির সকল তথ্য সরকারের রেজিস্ট্রি খাতায় জমা থাকে।

পূর্বে জন্ম নিবন্ধন শুধুমাত্র একটি ফরম কিনে লিখে দিলেই হয়ে যেতো কিন্তু বর্তমানে জন্ম নিবন্ধন কার্ড-এর নিয়মকানুনে  সরকার কিছুটা পরিবর্তন আনে।  অনলাইনের দুনিয়ায় বর্তমানে সবকিছুই অনলাইনে করা হয়ে থাকে।  ঠিক তেমনি জন্ম নিবন্ধন কার্ড এর সকল তথ্য গুলো অনলাইনে সংগ্রহ করা হয়।

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন কেন অনলাইন করবেন

পূর্বে একজন নাগরিকের জন্ম নিবন্ধনের তথ্য ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভার সরকারি খাতায় লেখা থাকতো কিন্তু বর্তমানে তথ্যগুলো তথ্যগুলো ইন্টারনেটে সরকারি ডাটাবেজে  সংগ্রহ করা হয়।  যাদের জন্ম নিবন্ধনের তথ্য সরকারি ডাটাবেজে নেই তাদের তথ্যগুলো ইন্টারনেটে খুঁজে পাওয়া যাবে না।

 জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার  পরে আপনার তথ্যগুলো ইন্টারনেটে খুঁজে পাওয়া যাবে বর্তমানে আপনি যদি কোন কাজ করতে যান যেমন চাকরির ইন্টারভিউ বা কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য জন্ম নিবন্ধন কার্ড জমা দেন তখন আপনার তথ্যগুলো তারা ইন্টারনেটে যাচাই করবে।  তাই যাদের জন্ম নিবন্ধন কার্ড এখনো অনলাইন করা হয়নি তারা দ্রুত অনলাইন করে নিবেন।

 তাহলে পরবর্তীতে আপনাদের এই জন্ম নিবন্ধন কার্ড নিয়ে ঝামেলা পোহাতে হতে পারে।  কিভাবে হাতের লেখা জন্ম নিবন্ধন বা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করবেন সে সম্পর্কে পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম এই লেখাটি। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই করতে এখানে ক্লিক করুন

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার পদ্ধতি

 জন্ম নিবন্ধন কার্ড হল একজন নাগরিকের পরিচয় পত্র। কোন কারণে যদি আমাদের জন্ম নিবন্ধন কার্ড টি হারিয়ে যায় বা নষ্ট হয়ে যায় তাহলে অতিদ্রুত এটি আমাদের সংগ্রহ করতে হবে কারণ আমাদের জীবনে প্রত্যেকটা ক্ষেত্রেই এই জন্ম নিবন্ধন সনদ এর প্রয়োজন হবে।

 পূর্বে আমাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ ছিল হাতে লেখা পদ্ধতিতে কিন্তু বর্তমানে ইন্টারনেটের ছোঁয়ায় তথ্যপ্রযুক্তির  দুনিয়ায়  সকল কাজই অনলাইনে সম্পাদনা করা হয় ঠিক তেমনি আমাদের জন্ম নিবন্ধন কার্ডের তথ্য গুলো ইন্টারনেটে সংগ্রহ করা হয়ে থাকে।

 যাদের জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করা নেই তাদের কোনো তথ্য অনলাইনে খুঁজে পাওয়া যাবে না এবং হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন বর্তমানে গ্রহণযোগ্য হবে না।  আপনার তথ্যগুলো যদি অনলাইনে খুঁজে পাওয়া না যায় তাহলে আপনি কোন কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন না।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে করনীয়

যাদের জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে পাওয়া যায়নি তাদেরকে আবার পুনরায় জন্ম নিবন্ধন কার্ড এর জন্য আবেদন করতে হবে বা এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আপনারা আপনাদের নিকটস্থ জন্ম নিবন্ধন অফিস বা পৌরসভায় যোগাযোগ করতে পারেন।

 যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন এর তথ্য অনলাইনে খুঁজে পাওয়া না যায় তাহলে বুঝতে হবে আপনার জন্ম নিবন্ধন কার্ড টি অনলাইন করা নেই পুনরায় আপনাকে কোন কম্পিউটারের দোকান থেকে জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করতে পারবেন এছাড়াও আপনারা কিভাবে জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করবেন সে সম্পর্কে আমরা নিজের ভিডিও টিউটোরিয়াল দিয়ে দিব।  ওইগুলো দেখে আপনারা নিজেরাই জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করতে পারবেন।

হাতের লেখা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করুন এই পদ্ধতিতে

হাতের লেখা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন কার্ড গুলো অনলাইন করতে হলে প্রথমে আপনাকে সিওর হতে হবে আপনার জন্ম নিবন্ধন কত ডিজিটের? আপনার জন্ম নিবন্ধন কার্ড টি যদি ১৭  ডিজিটের হয় তাহলে আপনাকে মনে করতে হবে আপনার জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করা।

 এর পরেও আপনারা জন্ম নিবন্ধনের তথ্য গুলো অনলাইনে চেক করবেন,  যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন কার্ড ১৭  ডিজিটের হওয়া সত্ত্বেও আপনার কোনো তথ্য অনলাইনে খুঁজে পাওয়া যায় না তাহলে আপনাকে পুনরায় জন্ম নিবন্ধন কার্ড এর জন্য আবেদন করতে হবে।

 পূর্বে হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন কার্ড এর নাম্বার ছিল ১৬  ডিজিটের কিন্তু পরবর্তীতে যখন অনলাইন করার নিয়ম আসে তখন  জন্ম নিবন্ধন ১৭  ডিজিটের করা হয়, ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বারের প্রথম ৪ সংখ্যা  হবে ব্যক্তির জন্ম জন্ম সাল এবং শেষের ৫  ডিজিটের আগে একটি ০  থাকবে।  শেষের ৫ ডিজিট হবে ঐ ব্যক্তির পরিচিতি নাম্বার।

যারা নতুন করে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে চাচ্ছেন তারা নিজেদের জন্ম নিবন্ধন কার্ড গুলো অনলাইন করার আগে আপনার পিতা ও মাতার জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করা আছে কিনা সেটা নিশ্চিত করবেন এবং যদি অনলাইন করা না থাকে তাহলে তাদের জন্ম নিবন্ধন কার্ড গুলো পূর্বে অনলাইন করে নিবেন।

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার পদ্ধতি

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার পদ্ধতি এই  প্রসেসটা অনেক বড় একটি প্রসেস  এটি যদি আমি আপনাদের লেখার মাধ্যমে বুঝায় তাহলে আপনাদের বুঝতে অনেক সমস্যা হবে তাই আমরা নিচে কয়েকটি ভিডিও লিংক দিয়ে দিচ্ছি যেগুলো দেখে আপনারা খুব সহজেই পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে পারবেন।

এখানে ক্লিক করে ১ম ভিডিও দেখুন

এখানে ক্লিক করে ২য়  ভিডিও দেখুন

এখানে ক্লিক করে ৩য়  ভিডিও দেখুন

এখান থেকে যেকোন একটি ভিডিও দেখে আপনারা সহজেই পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে পারবেন।  আশাকরি কিভাবে পুরাতন জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করবেন সে সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন আপনাদের সুবিধার্থে ভিডিও গুলি দেওয়া হয়েছে।

আরো পড়তে পারেন : জন্ম নিবন্ধন ১৭ ডিজিট করার নিয়ম

Nayem Nafi

হাই আমি নাঈম নাফি, শখের বসে লেখালেখি শুরু। নিত্য নতুন প্রযুক্তিগত সমাধান জানার চেষ্টা করি এবং আপনাদের সাথে শেয়ার করি।বর্তমানে কাজ করছি ইউটিউব, ফ্রিল্যান্সিং আর বিগেইনার ব্লগার হিসেবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top