জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার নিয়ম

বর্তমানে অনেকেরই জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স নিয়ে সমস্যা থাকে,  জন্মনিবন্ধনের বয়সে ভুল এসেছে বা জন্ম নিবন্ধন সনদ আপনার জন্ম তারিখ ভুল এসেছে  এই সমস্যাগুলো কিভাবে আপনারা ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে সমাধান করবেন। এই লেখাটির মূল উদ্দেশ্য হলো জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার নিয়ম সম্পর্কে আপনাদের জানানো। 

জন্ম নিবন্ধনের বয়স সংশোধন

একজন নাগরিকের গুরুত্বপূর্ণ একটি পরিচয় পত্র হলো তার জন্ম নিবন্ধন সনদ,  কোন নাগরিকের যদি জন্ম নিবন্ধন সনদ না থাকে তাহলে সে ওই দেশের নাগরিক সুবিধা ভোগ করতে পারবে না এছাড়াও জন্ম নিবন্ধন ব্যতীত আপনারা কোন কাজ করতে পারবেন না যেমনঃ  স্কুল-কলেজে ভর্তি,  ব্যাংকিং সুবিধা ইত্যাদি।

জন্ম নিবন্ধন কার্ড ব্যতীত আমরা জাতীয় পরিচয় পত্র তথা ভোটার আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবো না। একটি শিশু জন্ম গ্রহণের ৪৫  দিনের মধ্যেই জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরি করতে হবে,  আপনি যদি এর পরে জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি আদায় করতে হবে।

 অনেক সময় আমাদের জন্ম নিবন্ধন সনদের আমাদের বয়সে ভুল থাকে,  অনেকে ভুলে বয়স কম বেশি দিয়ে দেয় যেগুলো পরবর্তীতে অনেক ভোগান্তিতে ফেলে। জন্মনিবন্ধনের একদম সঠিক রাখা ভালো,  যাদের জন্ম নিবন্ধনের বয়সের সমস্যা আছে তারা কিভাবে জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করবেন সে সম্পর্কে এই লেখা টি।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন কেন করবেন

জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স কেন সংশোধন করবেন বা জন্ম নিবন্ধন সনদ সংশোধন করবেন?  আমাদের জন্ম নিবন্ধন কার্ড এর অনেক সময় অনেক তথ্য ভুল থেকে থাকে এই ভুলগুলো যদি দ্রুত সংশোধন না করে তাহলে পরবর্তীতে অনেক জায়গায় এই ভুলগুলো চলে আসবে।

আমরা যদি কোন স্কুল বা কলেজে ভর্তি হতে যাই তখন আমাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ এর ফটোকপি প্রদান করতে হয় তখন যদি আমাদের জন্ম নিবন্ধন কার্ড এ কোন তথ্যে ভুল থাকে তাহলে ওই ভুল অনুযায়ী আমাদের স্কুল সার্টিফিকেটে  ও ভুল আসবে। 

এক কথায় বলতে গেলে ওই জন্ম নিবন্ধন সনদপত্র টি আমরা যত জায়গায় ব্যবহার করব সব জায়গাতেই ওই তথ্য ভুল আসবে। জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার নিয়ম সম্পর্কে আমাদের এই লেখা টি।  কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদ এর বয়স সংশোধন করবেন তা নিচে দেখানো হলো।

জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স সংশোধন করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স সংশোধন করার জন্য আপনারা দুটি পদ্ধতি অবলম্বন করতে পারেন।

  • অনলাইনের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধন
  • জন্ম নিবন্ধন অফিস থেকে বয়স সংশোধন

তবে আপনারা যদি অনলাইনের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন সনদ এর বয়স সংশোধন করেন তাহলে খুব সহজেই ঘরে বসে আপনি নিজেই এই কাজটি করতে পারবেন। এই লেখাটিতে আমরা অনলাইনের মাধ্যমে কিভাবে জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধন করবেন সেই সম্পর্কে বিস্তারিত দেখানো হয়েছে।

আশা করি নিচের লেখাটা মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ পড়বেন তাহলে  আপনারা জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন কিভাবে করবেন অনলাইনের মাধ্যমে সে সম্পর্কে বুঝতে পারবেন এবং ভিডিওর মধ্যে আমরা দুটি ভিডিওর লিংক দিয়ে দেবো যেগুলো দেখে আপনারা জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে পারবেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার নিয়ম

অনলাইনের মাধ্যমে  যদি জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধন করতে চান তাহলে প্রথমে আপনাকে এখানে ক্লিক করে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। এরপরে আপনারা নিচের ছবির মত একটা ফ্রম দেখতে পাবেন আপনাদের ডিভাইসে।

এখান থেকে প্রথমে আপনাকে যেই জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স সংশোধন করতে চাচ্ছেন ওই জন্ম নিবন্ধন সনদ এর জন্ম নিবন্ধন নাম্বারটি প্রথম ঘরে বসিয়ে দিন,  এবং দ্বিতীয় ঘরে জন্ম নিবন্ধন সনদ অনুযায়ী জন্ম তারিখ দিয়ে দিন।  এরপরে পরবর্তীতে যাবার জন্য অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করুন।

  • অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথে আপনারা  একটু স্কল করে নিচের আসলেই দেখতে পারবেন আপনাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ এর কিছু তথ্য দেখা যাচ্ছে যদি সেগুলো ঠিক থাকে তাহলে নির্বাচন করুন এর উপর ক্লিক করুন পরবর্তী ধাপে যাওয়ার জন্য।
  •  আপনাকে একটি কনফারমেশন  নোটিশ দেয়া হবে, আপনি এখান থেকে কনফার্ম করে দিন।
  • এরপরে আপনাকে জেলা বিভাগ ইত্যাদি সিলেক্ট করতে হবে আপনি যেই ঠিকানা জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে চাচ্ছেন সম্পূর্ণভাবে ওই ঠিকানা বসিয়ে দিন। পরবর্তী ধাপের যেতে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।
  • এখান থেকে আপনাদের প্রধান কাজ এই অপশন থেকে আপনারা আপনাদের জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধন করার ফরম পাবেন।  নিচের ছবিটি লক্ষ্য করুন –
  • প্রথমে আপনাকে এখান থেকে বিষয় সিলেক্ট করতে হবে,  আপনি জন্ম নিবন্ধনের বয়স সংশোধন করতে চান তাহলে মার্ক করে দেখিয়ে দেওয়া জন্ম তারিখ সিলেক্ট করুন।
  • এর পরের ঘরে আপনাকে সঠিক জন্ম  তারিখটি দিতে হবে,  তারপরে সংশোধনের কারণ সিলেক্ট করুন।
  •  আপনারা যদি একবারে আরো তথ্য সংশোধন করতে চান তাহলে তীর চিহ্ন দিয়ে দেখিয়ে দেওয়া অপশন থেকে আরও তথ্য সংশোধনের নুতন একটি ফরম নিন এবং উপরে দেখানো পদ্ধতি অনুযায়ী ফরমটি পূরণ করুন।
  • এরপরে নিচে থাকা অপশন গুলো থেকে আপনাদের জন্মস্থান এর ঠিকানা স্থায়ী ঠিকানা ও বর্তমান ঠিকানা গুলো সঠিকভাবে সিলেক্ট করে দিন। 
  • এরপরে একটু স্ক্রল করে নিচে চলে যান সেখান থেকে আবেদনকারীর সম্পূর্ণ ঠিকানা দিন এবং  আবেদন কারীর ফোন নাম্বার দিন।
  • এরপরে আপনাকে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন এর জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলো আপলোড দিতে হবে,  জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধনের জন্য কি কি ডকুমেন্টস প্রয়োজন তা আমরা নিচে উল্লেখ করে দিব।
  •  এরপরে পেমেন্ট অপশন থেকে  ফি আদায় সিলেক্ট করে জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধন ফি পেমেন্ট করুন। জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স সংশোধন করার ফি হলো ১০০  টাকা ( কম-বেশি হতে পারে )
  • এরপরে সাবমিট বাটনে ক্লিক করে আপনার আবেদন ফর্মটি জমা দিয়ে দিন, আপনার দেয়া নাম্বারে মেসেজ এর মাধ্যমে একটি কোড যাবে সেই কোডটি সংগ্রহ করে রাখুন এবং আবেদন ফরম টির প্রিন্ট কপি ডাউনলোড করে আপনার নিকটস্থ জন্ম নিবন্ধন অফিস বা পৌরসভা/ ইউনিয়নে জমা দিন।

আশা করি কিভাবে জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধন করবেন সে সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন।  আপনারা চাইলে এই ভিডিওটি দেখে মোবাইলের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধনের জন্য আবেদন করতে পারেন।  ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন  

জন্ম নিবন্ধন এর বয়স সংশোধন করতে কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন

জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স সংশোধন করতে হলে আমাদের প্রমাণপত্র হিসেবে কিছু কাগজপত্র আপলোড দিতে হবে,  প্রমানপত্র হিসেবে যে সকল কাগজপত্র আপলোড দিতে হবে সেগুলো হলোঃ

  • শিশুর টিকা কার্ড
  • ব্যক্তির কোন স্কুল সার্টিফিকেট
  • জাতীয় পরিচয় পত্র
  • ইসু সম্পর্কিত ফাইল ( পুরাতন জন্ম নিবন্ধন যারা অনলাইন করেছেন তাদের ক্ষেত্রে )
  • এমবিবিএস ডাক্তার বা চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রদানকৃত সত্যায়িত কপি।ইত্যাদি-

এই সকল কাগজপত্র গুলো আপনারা জন্ম নিবন্ধনের বয়স সংশোধনের ক্ষেত্রে প্রমাণপত্র হিসাবে সাবমিট করতে পারেন। 

 জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার ক্ষেত্রে আপনারা এখানে ক্লিক করে এই ভিডিওটি দেখে কিছু জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। আশাকরি এই ভিডিওটি আপনাদের অনেক উপকারে আসবে।

জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার নিয়ম সম্পর্কে উপরে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করেছি এখান থেকে যদি কিছু বুঝতে আপনাদের সমস্যা হয় তাহলে অবশ্যই আমাদেরকে জানাবেন।  এতক্ষণ ধরে লেখাটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ সবাইকে। আশা করি এই লেখা টি আপনাদের জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার ক্ষেত্রে উপকারে আসবে।

আরো পড়ুন: জন্ম নিবন্ধন যাচাই yyyy mm dd

Nayem Nafi

হাই আমি নাঈম নাফি, শখের বসে লেখালেখি শুরু। নিত্য নতুন প্রযুক্তিগত সমাধান জানার চেষ্টা করি এবং আপনাদের সাথে শেয়ার করি।বর্তমানে কাজ করছি ইউটিউব, ফ্রিল্যান্সিং আর বিগেইনার ব্লগার হিসেবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top